Breaking News

জন্মের আগেই নিজের মা-ই শে’ষ করে ফে’লতে চেয়েছিলেন শশী কাপুরকে!

জাতীয় পু’রস্কার, দা’দাসাহেব ফা’লকে পুরস্কার, প’দ্মভূষণ থেকে দুটি ফি’ল্মফেয়ার, লাইফটাইম অ্যাচিভমেন্ট অ্যা’ওয়ার্ড সবকিছুই রয়ে’ছে ভা’রতীয় চ’লচ্চিত্র ইতিহাসের কিংবদ’ন্তি পুরুষ শশী কাপুরের ঝু’লিতে।তবে শু’ধু অ’ভিনেতা হিসাবেই নয়, পরিচালক, সহ পরিচালক, প্র’যোজক হিসাবেও কাজ ক’রেছেন শশী কাপুর। তাঁর ঝু’লিতে র’য়েছে ১৭৫টি ছবি। দী’র্ঘ অ’সু’স্থতার পর ২০১৭-র ৫ ডিসেম্বর ৭৯ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বা’স ত্যা’গ করেন শশী কাপুর।

১৯৯৫ সালে এক সা’ক্ষাৎকারে তাঁর জীবনের বেশকিছু অজা’না কথা প্র’কাশ্যে এ’নেছিলেন শশী কাপুর। জা’নিয়েছিলেন, তিনি ছি’লেন তাঁর মা রা’মসারণী মেহরা কাপুরের অ’যাচিত সন্তান। জ’ন্মের আগেই শশীকে শেষ করে দিতে চে’য়েছিলেন তাঁর মা। সা’ক্ষাৎকারে শশী কাপুর ব’লেছিলেন, ”আমা’র মা আমায় ফ্লু’কি (fluky) বলে ডা’কতেন। কারণ, আমাকে এই পৃথিবীতে আনার কোনও প’রিকল্পনাই ছিল না তাঁর।”

শশী কাপুর জা’নান, ”মায়ের আগে থেকে ৪ পুত্র সন্তান ছিল (রাজ কাপুর ও শা’ম্মী কা’পুরের মাঝে দুই ভাই মা’রা যান) তাই ১৯৩৩-এ তাঁদের কন্যা সন্তান ঊ’র্মিলা আসার পর খুশি ছি’লেন এর ৫ বছর পর ফের স’ন্তানসম্ভবা হওয়ার খবরে এ’ক্কেবারেই খুশি ছি’লেন না মা। তবে সেসময় গ’র্ভপাত করার সুযো’গ সে’ভাবে ছিল না। তাই সাইকেল চা’লিয়ে, সিঁড়ি থেকে পড়ে গিয়ে, কুইনাইন খেয়ে আমায় ন’ষ্ট করে দিতে চে’য়েছিলেন। তবে সেটা হয়নি।”

ছে’লেবেলায় একবার আ’ত্মহ’ত্যা ক’রতে গি’য়েছিলেন বলেও জা’নান শশী কাপুর। শশী কাপুরের কথায়, ম্যা’ট্রিক পরীক্ষা খা’রাপ ফল করায় অ’বসাদে ভু’গছিলেন তিনি। তারপর তাঁকে মা’থেরানে ছুটি কা’টাতে নিয়ে যাওয়া হয়। তারপর দেওলালি এলাকার বা’র্নেস স্কুলে তাঁকে রে’খে আ’সেন দাদা শা’ম্মী কাপুর।

শশী কাপুরের ক’থায়, তিনি স্কুল থেকে বাড়িতে চিঠি লি’খেছিলে, সেখানকার খাবার ভা’লো লা’গছে না। তাঁকে যদি সেখান থেকে না নিয়ে যাওয়া হয় তাহলে তিনি আ’ত্মহ’ত্যা ক’রবেন। পরে তাঁর মা-ই শা’ম্মী কাপুরকে বলেন ভাইকে স্কুল থেকে নিয়ে আ’সতে। শশী কাপুর বিয়ে ক’রেছিলেন জেনিফার কেন্ডালকে। তাঁদের তিন সন্তান করণ কাপুর, কুণাল কাপুর ও স’ঞ্জনা কাপুর।

Sharing is caring!

About admin

Check Also

শিশুদের স্মার্টফোন আসক্তির ৫টি কুফল ও প্রতিকারের উপায়

আপনি হয়ত কোন গুরুত্বপূর্ণ কাজে ব্যস্ত। আপনার পাশে বসে ছোট বাচ্চাটা খুব দুষ্টুমি করছে। বাচ্চাকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *