Breaking News

ইঞ্জিনিয়ারিং পড়তে পিছপা, তখন লোকে বলল ইউপিএসসি পড়তে পারবি না, আজ কঠোর পরিশ্রম করে আইএএস হয়ে গেল হিমাংশু

প্রতিবছর লক্ষ লক্ষ অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে আসে এবং বিভিন্ন ডিগ্রী অর্জন করেন এবং অনেক সময় ইউপিএসসি পরীক্ষায় বসে নিজেদের চাকরি ছেড়ে দেন। অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে কিছু পড়াশোনা শীর্ষে রয়েছে এবং কিছু সাধারণ অংশগ্রহণকারী ও রয়েছে। তবে এর অর্থ এই নয় যে এই পরীক্ষায় কেবল শীর্ষস্থানীয়রাই সফল।

অনেক লোক আরো মনে করেন যে শিক্ষার্থীরা পড়াশোনায় ভালো নয় তারা এই পরীক্ষায় সফল হতে পারেন না তবে বাস্তব অন্য কথা বলছে অনেক সফল অংশগ্রহণকারীরা তাদের সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন যে তারা প্রথমে পড়াশুনায় ভাল ছিল না কিন্তু এই পরীক্ষার জন্য তারা খুব কঠোর পরিশ্রম করেছিলেন এবং সাফল্য পেয়েছেন। এরকম একটি সফল অংশগ্রহণকারী হলেন দিল্লির হিমাংশু কৌশিক।

যিনি পড়াশোনা স্মার্ট ছিলেন না যার কারণে সকলেই তাকে ইউপিএস এর মতন কঠিন পরীক্ষা দিতে মানা করেছিলেন কিন্তু সমস্ত বিষয় উপেক্ষা করে তিনি নিজের উপর বিশ্বাস করেছিলেন এবং কঠোর পরিশ্রম করে সফল হয়েছেন। আসুন জেনে নেওয়া যাক তার সাফল্যে গল্পটি।হিমাংশু দিল্লিতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন এবং সেখান থেকে তিনি প্রাথমিক শিক্ষা লাভ করেছিলেন।

হিমাংশু দশম শ্রেণীতে 82 শতাংশ নম্বর অর্জন করলেও তিনি দ্বাদশ এবং বিটেক এর ক্ষেত্রে পিছিয়ে পড়েছিলেন এবং অনেক লড়াইয়ের পরেও তিনি ভালো ফলাফল করতে পারেননি। যদিও তিনি অনেক পরিশ্রম করেছিলেন কিন্তু বিটেক পরীক্ষাতেও তার দু একটি বিষয়ে ব্যাক ছিল যদিও তিনি আবার পরীক্ষা দিয়ে 65 শতাংশ নম্বর পেয়ে বিটেক সম্পন্ন করেন।

বিটেক করার পর হিমাংশু একটি সংস্থায় চাকরি পেয়েছিলেন।তিনি এই কাজটি প্রায় তিন বছর ধরে করেছিলেন কিন্তু তারপরে এই কাজটি নিয়ে তার মনে উদাসীনতা সৃষ্টি হয়। তারপরে তিনি ইউপিএসসি পরীক্ষা দেওয়ার কথা ভেবেছিলেন। হিমাংশু বলেছিলেন যেহেতু তিনি পড়াশোনায় খুব একটা ভালো নয় তাই অনেক লোক তাকে বলেছিল যে,

ইউপিএসসি পরীক্ষা দিয়ে সময় নষ্ট করতে না কারণ সে এ পরীক্ষাটি পাস করতে পারবে না এবং এটি একটি খুব কঠিন পরীক্ষা এই ব্যাপারে প্রস্তুতি নিতে গেলে সে তার বর্তমান চাকরিটিও হারাতে পারে।তবে হিমাংশু সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন যে তিনি মানুষের মানসিকতাকে পরিবর্তন করবেন এবং কঠোর পরিশ্রম করে সাফল্য অর্জন করবে।

নিজের সুবিধার মতন সিলেবাস পড়েন এবং সেই অনুযায়ী প্রস্তুতি নেন। এবং তার কঠোর পরিশ্রমের ফল স্বরূপ 2017 সালে যখন তিনি পরীক্ষা দিয়েছিলেন তিনি প্রথম বারেই সফল হন। তিনি অল ইন্ডিয়া লেভেলে 77 তম স্থান অর্জন করেছিলেন এবং আই এ এস এর সমস্ত সমালোচককে অবাক করে দিয়েছিলেন।

পরীক্ষায় হোক না কেন আপনি যদি সেই পরীক্ষা দিতে চান তবে অবশ্যই চেষ্টা করতে হবে এবং আপনি কঠোর পরিশ্রম করলে অবশ্যই সফলতা পাবেন লোকেরা আপনাকে বিপরীত পরামর্শ দেবে এবং তারা বলবে যে যেহেতু আপনি পড়াশোনায় বেশি ভালো নয় আপনি এই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হবেন না,

এই সমস্ত মানুষদের কথায় কান না দিয়ে আপনার কঠোর পরিশ্রম এবং পড়াশোনায় মন দেওয়া উচিত আপনি অবশ্যই সাফল্য লাভ করবেন। আইএএস হিমাংশু কৌশিকের সাফল্যের সাথে সমস্ত শিক্ষার্থীদের শিক্ষার যে তাদের লক্ষ্য অর্জনের জন্য অবশ্যই প্রচেষ্টা করা উচিত। দৃঢ় সংকল্প এবং কঠোর পরিশ্রমের সাথে যারা নিজেদের গন্তব্যের পথে চলে তারা অবশ্যই সফল হয়।

Sharing is caring!

About admin

Check Also

সাত মাস ধরে পেটে যন্ত্রণা এক তরুণীর, অপারেশন করতেই ডাক্তারদের চক্ষু চড়কগাছ !

রামপুরহাট সুপার স্পেশালিস্ট হাসপাতালের চিকিৎসকরা অস্ত্রোপচার করে এক তরুণীর পেট থেকে বার করল প্রায় ১ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *